রিয়া সেন দীর্ঘদিনের ভক্ত প্রেমিককে অত্যন্ত গোপন অনুষ্ঠানে বিয়ে করলেন এই সব কারণে!

অভিনেত্রী রিয়া সেন তাঁর দীর্ঘদিনের ভক্ত প্রেমিক শিবম তেওয়ারি সঙ্গে একটি অত্যন্ত গোপন অনুষ্ঠানে মালা বদল করে সবাই কে অবাক করে দিয়েছেন। পুনের শেরেটন গ্র্যান্ড হোটেলে গত বুধবার শুধু পরিবারের সদস্য এবং ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের উপস্থিতিতে তাঁর পরিণয় সম্পন্ন হল।

স্বাভাবিকভাবেই, সেন বোনেরা এবং তাঁদের পুরো পরিবার এতে খুবই খুশী এবং এমনকি খুশীর চোটে তাঁরা তাঁদের বন্ধুদের নিয়ে এক বিবাহপূর্ব ভোজের আয়োজন করেন।

রিয়ার দিদি রাইমা তাঁর ইনস্টাগ্রামে এই ভোজসভার একটি ছবি শেয়ার করেছেন, সেখানে আপনি কনে এবং বর শিবমকে (যাঁর দাড়ি আছে) এই ছবিতে দেখতে পাবেন। বিয়ের আসল অনুষ্ঠান থেকেও তিনি একটি ছবি পোস্ট করেছেন এবং আমরা বলতে পারি যে কনে কে জমকালো দেখাচ্ছে।

যদিও রিয়া বি-টাউনে এবং আঞ্চলিক সিনেমায় সুপরিচিত মুখ, তাঁর স্বামী একজন উৎসাহী বাইকচালক - এর বেশী কিছু জানা যায় না।

 

A post shared by Raima Sen ✅ (@raimasen) on

রিয়ার মালাবদলের প্রকৃত কারণ

৩৬ বছরের অভিনেত্রী, যাঁকে 'লোনলি গার্ল' সিনেমায় শেষবার দেখা গেছে, তিনি বহুদিন ধরেই তেওয়ারির সঙ্গে আছেন। প্রকৃতপক্ষে, এই অভিনেত্রী, যিনি ঘন ঘন বিদেশ ভ্রমণ করেন, প্রায়ই সোশ্যাল মিডিয়ায় হবু স্বামীর সঙ্গে তাঁর ছবি শেয়ার করেছেন।

যদিও, ভালবাসাই এই পবিত্র বিয়ের সুস্পষ্ট কারণ বলে মনে হতে পারে, কিন্তু প্রকাশিত খবরে বিশ্বাস করলে জানা যাচ্ছে যে রিয়া মা হতে চলেছেন এবং মা হওয়ার আগে মালাবদলটা সেরে ফেলতে চেয়েছিলেন।

কিন্তু তেওয়ারির সঙ্গে তাঁর থিতু হবার আর একটি কারণ আছে, যা তাঁর বিখ্যাত অভিনেত্রী মা মুনমুন সেন কিছুদিন আগে প্রকাশ করেছেন।

"তাঁদের জন্য এমন ছেলে খুঁজে বের করার প্রয়োজন ছিল, যারা ধনী"

টাইমস অফ ইন্ডিয়ার (টিওআই) সঙ্গে কথা বলার সময় শ্রীমতী সেন প্রকাশ করেন যে তাঁর দুই মেয়েরই "রক্ষণাবেক্ষণ উঁচু," এবং এমন ব্যক্তিকে বিয়ে করবে যে তাদের প্রত্যাশা পূর্ণ করতে পারে।

"যেখানে রাইমা লম্বা ও বিদগ্ধ ছেলেদের পছন্দ করে, সেখানে রূপবান হওয়াটাই রিয়ার ক্ষেত্রে জরুরী। টাকাপয়সা তাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ নয়, কারণ তারা এর মূল্য বোঝে না। কিন্তু দুটি মেয়েরই রক্ষণাবেক্ষণ খরচ খুবই বেশী, তাই আর কিছু না হলেও তাদের এমন ছেলে দরকার যারা অগাধ ধনী," একটি প্রতিবেদন অনুযায়ী ৬৩ বছর বয়সী অভিনেত্রী টি ও আই কে বলেছেন।

কাজেই, মনে হচ্ছে ভালবাসাই এই বিয়ের একমাত্র কারণ নয়, শুধু চোখে যা দেখা যায় তার বাইরেও এতে অনেক কিছু আছে। যাইহোক, আমরা এই সুখী নবদম্পতিকে সেরা শুভেচ্ছা জানাই।

কিন্তু যদি আপনি অবাক হয়ে ভাবছেন যে ধনসম্পদ ছাড়া আর কি গুণ থাকতে পারে যা নারীদের তাঁদের স্বামীর প্রতি আকর্ষিত করে, তাহলে এ বিষয়ে বিজ্ঞান কি বলে, দেখা যাক।  

জীবনসঙ্গী নির্বাচনে ২০ টি আকাঙ্খিত গুণ

একটি সাম্প্রতিক গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে যে মানুষ তার জীবনসঙ্গীর মধ্যে “২০ টি সর্বাধিক আকাঙ্খিত গুণ” খোঁজে।

riya sen

 

জীবনসঙ্গী নির্বাচনে প্রথম ২০ টি সর্বাধিক মূল্যবান ব্যক্তিত্ব সম্বন্ধীয় মানবিক গুণাবলী

পুরুষদের পছন্দ

নারীদের পছন্দ

বিশ্বাসযোগ্য

উষ্ণ

উষ্ণ

বিশ্বাসযোগ্য

সৌন্দর্য

সৌন্দর্য

বুদ্ধিমত্তা

বুদ্ধিমত্তা

জ্ঞ্যানবান

জ্ঞ্যানবান

ন্যায়বান

নির্ভরযোগ্য

নির্ভরযোগ্যা

নিরাপদ

কঠোর শ্রমপরায়ণ

কঠোর শ্রমপরায়ণ

নিরাপদ

স্থির আবেগ

১০

সহজ

১০

সহজ

১১

স্থির আবেগ সম্পন্ন

১১

অনুভবী

১২

অনুভবী

১২

ক্ষমাশীল

১৩

স্থির মেজাজের

১৩

ন্যায়বান

১৪

উদ্যমী

১৪

উদ্যমী

১৫

বাস্তব বোধ সম্পন্না

১৫

উদার

১৬

কৌতুহলী

১৬

সামাজিক

১৭

সামাজিক

১৭

কৌতুহলী

১৮

সৃজনশীল

১৮

সুসংগঠিত

১৯

সুসংগঠিত

১৯

নমনীয়

২০

নিরুদ্বেগ

২০

নিরুদ্বেগ

 

মজার ব্যাপার, যদিও এই ভুল তথ্যটি অনেকে বিশ্বাস করেন যে জীবনসঙ্গী পছন্দের ব্যাপারে নারী ও পুরুষেরা সম্পূর্ণ আলাদা বিন্দুগুলিতে গুরুত্ব দিয়ে থাকেন,া হচ্ছে কিন্তু এখানে দেখা যাচ্ছে যে ২০ টির ১৭ টি একই!

সাধারণভাবে বলতে গেলে, এই গবেষণায় দেখা যাচ্ছে যে অধিকাংশ নারী-পুরুষ এমন একটি মানুষকে খোঁজে, যে তাদেরই মতো। অন্যভাবে বলতে গেলে, আমরা জীবনসঙ্গীর যেটা সবচেয়ে বেশী চাই, সেটা হচ্ছে সামঞ্জস্য।