ভেতরে ছবির : মা কারিনার তারকা খচিত জন্মোৎসবের পার্টিতে তৈমূর হয়ে গেল প্রধান আকর্ষণ!

নোতুন মা কারিনা কাপুর খান কাল ৩৭ বছরের হলেন এবং এই বিশেষ দিনটিতে তাঁর বাড়িতে একটি ব্যক্তিগত অনুষ্ঠানের আয়োজন হয়েছিল।

সেখানে আমোদ উল্লাস আরও বিশেষ ছিল কারণ এটা মা হবার পর কারিনার প্রথম জন্মদিন এবং স্বাভাবিক কারণেই এই সন্ধ্যার বড় আকর্ষণ ছিল তাঁর আদরের ছেলে তৈমুর।

কারিনা প্রথমে তৈমূরকে নিয়ে তাঁর মা ববিতার বাড়ি গিয়ে উৎসবের সূচনা করলেন এবং তারপর তারকা খচিত কিন্তু ছোটখাটো বাড়িতে আয়োজিত সান্ধ্য আসরের জন্য ফিরে গেলেন।

কারিনা কিভাবে তাঁর ৩৭ তম জন্মদিন পালন করলেন, দেখতে হলে 'গ্যালারীতে দেখুন' এ ক্লিক করুন।

অনুষ্ঠানটি ছিনিয়ে নিল তৈমূর

কারিনার দিন শুরু হয়েছিল আর পাঁচটা দিনের মতোই আর তাঁকে সারাদিন জিমে গলদঘর্ম হতে দেখা গেল। কিন্তু সেখান থেকে ফিরবা মাত্র সঙ্গে সঙ্গে তিনি তৈমূরকে নিয়ে তাঁর মা ববিতার বাড়ি গেলেন।

সেটাই ছিল অনুষ্ঠানের সূচনা যা এরপর তাঁর বান্দ্রার অ্যাপার্টমেন্টে আয়োজিত হয়েছিল।

আর তারপর তো তাঁর ছেলে তৈমূরই তার কৌতুহলী এবং অতি প্রিয় চেহারা নিয়ে পাদপ্রদীপের সব আলো তাঁর মায়ের ওপর থেকে (যেমন অন্যান্য বার হয়) ছিনিয়ে নিল।

বিশাল জন্মদিনের পার্টি

প্রতি বছরের মতো, কারিনার ৩৭ তম জন্মদিনও পরিবারের সদস্য আর খুবই ঘনিষ্ঠ কিছু বন্ধুর উপস্থিতিতে উদযাপিত হল।

জন্মদিনের মেয়েটি তাঁর নিজের বোন করিশ্মা কাপুরের সাথে শীঘ্রই মা হতে চলা ননদ সোহা আলী খান এবং ননদাই কুণাল কেম্মুকেও স্বাগত জানালেন।

তাঁর ম্যানেজার পূণম দামানিয়াও এই সান্ধ্য বাসরের ছবি নিজের ইনস্টাগ্রামে দিয়ে এই পার্টির ঘটনাক্রমের একটি বিবরণী সবাইকে জানিয়েছেন।

ঘনিষ্ঠ বন্ধুরা একসাথে হল বেবো কে শুভেচ্ছা জানাতে

পার্টিতে কেবল বেবোর ঘনিষ্ঠ বন্ধুরা যেমন, মালাইকা আরোরা খান, করণ জোহর, অর্জুন কাপুর, মনীশ মালহোত্রা, নাতাশা পুনাওয়ালা, মহীপ কাপুর, সঞ্জয় কাপুর এবং সীমা খান উপস্থিত ছিলেন।

সিনেমা জগতের কেউকেটারা সব উপস্থিত ছিলেন, কিন্তু তাঁরা সবাই বেবোর ঘনিষ্ঠ বন্ধু।

পরিষ্কার বোঝা যায় যে তিনি ব্যাপারটি শুধু হাতে গোনা পছন্দসই ব্যক্তিদের নিয়ে সরলভাবে করতে চেয়েছিলেন।

বেবোর জন্মদিনের পার্টি

যে অভিনেতা তাঁর সর্বশেষ ছবির শুটিং করার জন্য দিল্লিতে ছিলেন, তিনিও জন্মদিনের অনুষ্ঠানে স্বামী, পুত্র ও ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের এবং পরিবারের সঙ্গে মিলিত হবার জন্য মুম্বাইয়ে ফিরে এসেছেন।

তাঁদের বেশিরভাগই নিজেদের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডলগুলিতে সান্ধ্যভোজের ছবি পোস্ট করেছেন এবং তাতেই আমাদের এই পার্টির কিছুটা আভাস দিয়েছেন।

আমরা এই চমৎকার নতুন মা'কে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাই!