দিদিমা হেমা মালিনি কিভাবে কন্যা এষা দেওলের বাচ্চার আগমনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন, এখানে দেখুন

এষার প্রসব তার বাপের বাড়িতে হবে …….

এই সপ্তাহে আগেই আমরা আপনাকে বলেছি যে হেমা মালিনী এবং ধর্মেন্দ্রের বড় মেয়ে ইশা দেওল এই বছরের শেষের দিকে তার প্রথম সন্তানের আশা করছেন।  অতঃপর, প্রবীণ অভিনেত্রী ও রাজ্যসভা সাংসদ অবশেষে এ সংবাদের একটি অফিসিয়াল কনফার্মেশন দিয়েছেন।

এখন, প্রবীণ অভিনেত্রী এবং রাজ্যসভা এমপি শেষ পর্যন্ত তার মেয়ে এষার গর্ভধারণের একটি অফিসিয়াল কনফার্মেশন করেছেন।  বাঘবানের অভিনেত্রী এ সংবাদটি তার ভক্তদের টুইটারে জানিয়েছেন।

লেখক এবং সাংবাদিক রাম কমল মুখার্জী, যিনি হেমা মালিনির জীবনের ওপর একটি বই লিখছেন, তিনিই হলেন এষার গর্ভধারণের খবর জানানো প্রথম ব্যক্তি।

"হ্যাঁ, আসলে আমি একটি বই লিখছি, তাই আমি প্রায়ই তাঁদের ঘরে যাই, এবং সেই সুবাদে আমি বলতে পারি যে হেমাজি এবং পুরো পরিবার এষার গর্ভধারণে অত্যন্ত উৎফুল্ল, তিনি অক্টোবরে যে কোন সময়ে বাচ্চা আশা করছেন, তিনি হেমাজি'র বাড়ীতে আছেন এবং হেমাজি এবং ধরমজি স্বভাবতই খুব খুশি!   ভরতও খুবই উত্তেজিত এবং কাজ থেকে বেশিরভাগ সময় ছুটি নিয়ে এষার সঙ্গে সময় কাটাচ্ছে,"  তিনি ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে বলেছেন।

এষা প্রসবের জন্য তাঁর মায়ের কাছে আছেন

আরেকটি সংবাদ সূত্রে প্রকাশিত হয়েছে যে, ইশা প্রসব না হওয়া পর্যন্ত তাঁর বাপের বাড়িতেই থাকবেন এবং উদ্দীপিতা দিদিমা হেমাজি ইতিমধ্যেই শিশুর আগমনের প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছেন।

"এখন, এশা তাঁর মা, হেমা মালিনীর সঙ্গে জুহুর বাংলোতে থাকছেন এবং নিয়মিত বান্দ্রাতে তার শ্বশুরবাড়িতে দেখা করতে যান।  উদ্দীপিতা হেমাজী ইতিমধ্যেই পরিকল্পনা করে ফেলেছেন যে কিভাবে তাঁর ঘরটিকে আরো বেশী শিশুদের উপযুক্ত করতে হবে।  বছরের শেষ দিকে  শিশুটির আগমনের সম্ভাবনা আছে,"  একটি জনপ্রিয় বিনোদন পত্রিকাতে প্রকাশিত হয়েছে।

শিশু প্রসবের জন্য পিত্রালয়ই শ্রেষ্ঠ স্থান কেন, তার তিনটি কারণ

হেমা মালিনীর ছোট্ মেয়ে অহনা দেওলের ছেলে দারিয়েন বোহরা, অর্থাৎ তাঁদের প্রথম নাতির জন্মের পর আবার একটি শিশুর আগমনে স্বাভাবিকভাবেই হবু দাদু-দিদিমা, ধর্মেন্দ্র ও হেমা অত্যন্ত আনন্দিত। সম্ভবত এই কারণেই তাঁরা চাইছেন যে এষা তার ছোটবেলার বাড়িতেই প্রসবের সময় থাকুক।

অনেক মহিলারাই প্রসবের সময় পিত্রালয়ে থাকা পছন্দ করেন।  কেউ কেউ পারিবারিক প্রথা মেনে এটা করেন, আবার অনেকে এটা করেন কারণ বাপের বাড়িতে সন্তানের জন্ম দেওয়ার অনেকগুলি সুবিধে আছে :

১।  মা আপনার সাথে থাকেন : প্রথম এবং সর্বপ্রধান কারণ হলো বাপের বাড়িতে আপনার মা আছেন এবং তিনি হচ্ছেন এমন একজন যিনি এই পৃথিবীর অন্য কোনও ব্যক্তির চেয়ে ভাল জানেন।  প্রকৃতপক্ষে, শিশুর জন্মদান একটি মহিলার জীবনের শ্রেষ্ঠ অভিজ্ঞতা, কারণ তিনি সেই সময় মা হয়ে ওঠেন এবং সেসময় আপনি যদি আপনার নিজের মায়ের সঙ্গে থাকেন, সেটি একটি অমূল্য অনুভূতি।

২।  আপনি আপনার স্বাচ্ছন্দ্যের স্থানে থাকেন : এ বিষয়ে আমরা সবাই অবশ্যই একমত হব যে, জন্মের পর যেখানে আমরা বড় হয়েছি, আমাদের অন্তরে চিরদিন সেটাই প্রথম বাড়ি বলে মনে হয়। এটা আমাদের নিজস্ব স্বাচ্ছন্দ্যের স্থান, এমন একটি জায়গা যেখানে আমরা নিজেদের হতে পারি এবং অন্যদের সম্পর্কে মাথা না ঘামাতেও পারি।  পাশাপাশি, আপনার সঙ্গে বাপের বাড়ির অনেক বিশেষ স্মৃতি বিজড়িত হয়ে থাকে।

৩।  আপনি সর্বাধিক বিশ্রাম পেতে পারেন : যেহেতু আপনার মা আপনার যত্ন করেন, তিনি চেষ্টা করবেন যাতে আপনি সর্বাধিক বিশ্রাম পান এবং সমস্ত চাপ থেকে দূরে থাকতে পারেন।  কথাটা আপনার ভাল লাগুক বা না লাগুক কিন্তু এটা ঘটনা যে আপনার শ্বশুর বাড়িতে এটা কখনই সম্ভব নয়।  আপনি কি একমত নন?