এখন একটি শিশুকে দত্তক নিতে হলে আপনাকে আরও কঠোর পরীক্ষা নিরীক্ষার মধ্যে দিয়ে যেতে হবে!

সামাজিক কর্মীরা এখন সম্ভাব্য মা-বাবার বাড়ি গিয়ে বিচার করবে যে সম্বন্ধিত দত্তক নেবার আবেদনে সবুজ সংকেত দেওয়া যায় কি না।

আপনি কি শীঘ্রই পুত্র বা কন্যা দত্তক নিয়ে মা-বাবা হত্তয়ার পরিকল্পনা করছেন? তাহলে সামাজিক কর্মীদের দ্বারা গৃহভিত্তিক মূল্যায়ন সহ দত্তক কর্তৃপক্ষ দ্বারা কঠোর পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্য প্রস্তুত থাকুন।

হ্যাঁ, আপনিঠিকই পড়েছেন  

নারী ও শিশু উন্নয়ন মন্ত্রণালয়ের নতুন নির্দেশিকা অনুযায়ী, প্রতিটি দত্তক প্রস্তাব গৃহীত হওয়ার আগে একটি 'হোম স্টাডি রিপোর্ট' প্রস্তুত করা হবে।

সামাজিক কর্মীরা এবার পরীক্ষা করবেন যে ঘরটি সন্তানের জন্য উপযুক্ত কিনা

রিপোর্ট অনুযায়ী, পুরোনো নির্দেশিকাগুলির পরিবর্তে, সামাজিক কর্মীরা এখন সম্ভাব্য মা-বাবার বাড়িতে সামাজিক ও অর্থনৈতিক জীবনযাত্রার পরিবেশ আছে কিনা তা বিচার করবেন।

"এ ছাড়াও, সামাজিক কর্মীরা বিভিন্ন মানদণ্ড অনুযায়ী মূল্যায়ন করবেন যে, বাড়িটি সন্তানের জন্য উপযুক্ত কিনা।" বর্তমান গৃহ অধ্যয়ন প্রতিবেদনে আরও অনেক কিছুর সাথে এই প্রশ্নগুলি থাকে, "সন্তানকে গ্রহণ করার পিছনে আপনার প্রেরণা কি?", "যখন আপনি কাজে থাকবেন তখন সন্তানের পরিচর্যা কে করবে", "সন্তান প্রতিপালন করার জন্য বাবা-মায়ের কোন পরামর্শ প্রয়োজন আছে কিনা", ইন্ডিয়া টুডের রিপোর্টে প্রকাশিত হয়েছে।

সেন্ট্রাল অ্যাডপশন রিসোর্স অথরিটির সিইও কর্ণেল দীপক কুমার এই দৈনিককে আরও জানান, "এখনও পর্যন্ত প্রশ্নগুলির উত্তর সোজাসুজি হ্যাঁ বা না তে দেওয়া যেত। এখন আমাদের সামাজিক কর্মীদের সম্ভাব্য মা-বাবার  বাড়ির পরিবেশ পর্যবেক্ষণ করতে বলা হবে এবং তার ফলাফলের উপর ভিত্তি করে তাদের একটি রিপোর্ট জমা দিতে হবে।"

ডাক্তারি পরীক্ষাও করা হবে

নতুন নিয়মে আর একটি সংজোজন শিশুটির স্বাস্থ্যের সাথে সম্পর্কিত।

এবার, একজন ডাক্তার শিশুটির শরীরবৃত্তীয় অবস্থা জন্য পরীক্ষা করবেন এবং তাঁর রিপোর্টটি সন্তানের দত্তক গ্রহণ নথির মধ্যে জমা রাখা হবে।

"এছাড়া, মেডিক্যাল পরীক্ষা রিপোর্টে একটি নিবন্ধন সংখ্যা থাকবে এবং যিনি শিশুটিকে পরীক্ষা করেছেন সেই চিকিৎসকের স্বাক্ষরও থাকবে, এবং কোনরকম চিকিৎসা সম্বন্ধীয় অবহেলার জন্য মা-বাবার ক্ষতি হলে তাঁকে সেই অর্থ প্রদান করতে হবে"।

তিন বছর বয়সী শেরিন ম্যাথিউসের মৃত্যুর পর এই নতুন নিয়মগুলি চূড়ান্ত করা হয়। কিন্তু যাঁরা ইতিমধ্যেই দত্তক গ্রহণের জন্য প্রয়োগ করে দিয়েছেন, তাঁদের জন্য এখানে বর্তমান নিয়ম একটি সারসংক্ষেপ দেওয়া হল।

ভারতে দত্তক গ্রহণের নিয়মাবলী

ভারতে দত্তক গ্রহণের জন্য সেন্ট্রাল অ্যাডপশন রিসোর্স অথরিটি বা সিএআরএ'র কিছু কঠোর নিয়ম রয়েছে। আসলে, তারা তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে দত্তক গ্রহণের পদ্ধতিগুলি সুনির্দিষ্টভাবে তালিকাভুক্ত করেছে। কিন্তু, যেমন আগেই বলা হয়েছে, এখানে আপনার মূলত যা জানা প্রয়োজন, তা দেওয়া হল :

  • কোন ভারতীয় বা অনাবাসী ভারতীয় (এনআরআই) একটি শিশু গ্রহণ করতে পারেন, যদি শারীরিক, মানসিক এবং আবেগগত ভাবে স্থিতিশীল, আর্থিকভাবে সক্ষম, একটি শিশুকে গ্রহণ করার জন্য অনুপ্রাণিত হন এবং কোনও জীবন-সংশয় ব্যধিতে আক্রান্ত না থাকেন।
  • বৈবাহিক অবস্থা এবং পূর্ববর্তী সন্তানরা বাধা নয়, তবে একটি একক পুরুষ একটি মেয়ে সন্তান গ্রহণ করতে পারে না।
  • বিবাহিত দম্পতি যাঁদের দুই বছরেরও বেশি সময় ধরে একটি স্থিতিশীল সম্পর্ক রয়েছে, তাঁরা একটি শিশু গ্রহণ করতে পারেন।
  • শিশু এবং দত্তক গ্রহীতা মা-বাবার মধ্যে বয়সের সর্বনিম্ন ব্যবধান হতে হবে ২৫ বছর।
  • মা ও বাবা, দুজনের বয়সের যোগফল ১১০ বছরের বেশি হওয়া চলবে না এবং যদি শুধু মা বা বাবা দত্তক নিতে চান, তাহলে বয়স ৫৫ বছর অতিক্রম করতে পারবে না।