গর্ভাবস্থায় স্তনে ফুটো - আপনার কি উদ্বিগ্ন হওয়া উচিত?

গর্ভাবস্থায় স্তনে ফুটো - আপনার কি উদ্বিগ্ন হওয়া উচিত?

একটি গর্ভবতী মহিলা অবশেষে তাঁর গর্ভাবস্থায় স্তনে ফুটো হওয়ার সম্মুখীন হতে পারেন।  পুরু, চটচটে, হলদেটে কমলা রঙের যে তরল পদার্থ বেরিয়ে আসে তা আসলে দুধ নয়, সেটি প্রকৃতপক্ষে কোলোস্ট্রাম। কোলোস্ট্রাম শিশুর জন্য পুষ্টিগুণ সম্পন্ন একটি তরল।  শিশুটিকে সুস্থ রাখার জন্য এতে চর্বি কম থাকে এবং কার্বোহাইড্রেট, প্রোটিন, এবং অ্যান্টিবডিগুলি বেশী পরিমাণে থাকে।  এর পরিমান কম হয় কিন্তু নবজাতকের জন্য ঘন পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ হয়।

আমার কি স্তন ফুটো হওয়া নিয়ে বিচলিত হওয়া উচিত?

না, গর্ভবতী অবস্থায় কোলোস্ট্রাম চুঁইয়ে বেরিয়ে আসার ব্যাপারে আপনার বিন্দুমাত্র উদ্বিগ্ন হওয়া উচিত নয়। এটি গর্ভাবস্থার অতি সাধারণ একটি উপসর্গ। কিছু মহিলার গর্ভধারণের ১৪ সপ্তাহের মধ্যে স্তনে ফুটো দেখা দিতে পারে, অন্যরা অনেক পরে এটি অনুভব করতে পারে বা আদৌ না করতে পারে।  কখনও কখনও আপনার একটি স্তন থেকে নিঃসরণ হতে পারে য়াবার কখনও উভয় স্তন থেকে।  একই সময়ে কিছু নারীর বেশী পরিমাণে নিঃসরণ হতে পারে এবং কারো খুব কম হতে পারে।  যাই হোক না কেন, এটি নবজাতককে মাতৃদুগ্ধ যোগাবার জন্য শুধু মাত্র একটি দৈহিক প্রস্তুতি।

উপরন্তু, যদি পুরো গর্ভাবস্থায় আপনার একবারও স্তন থেকে নিঃসরণ না হয়, তবুও চিন্তার কিছু নেই কারণ সেটিও সম্পূর্ণ স্বাভাবিক এবং কোনোভাবেই শিশুর জন্মের পর বুকে দুধ আসা না আসা কে প্রভাবিত করে না।

স্তন থেকে নিঃসরণ এর ব্যাপারে আমি কি করতে পারি?

যদি আপনি প্রবল নিসরণের সম্মুখীন হন, আপনি নিষ্পত্তিযোগ্য স্তন প্যাড অথবা আপনার বক্ষবন্ধনীর মধ্যে  নার্সিং প্যাড ব্যবহার করে দেখতে পারেন যা কোলোস্ট্রামের অবাঞ্ছিত নিঃসরণ শোষণ করে অস্বস্তিকর পরিস্থিতি থেকে বাঁচার মতো করে বিশেষভাবে ডিজাইন করা হয়। সিঙ্গাপুর জুড়ে কিছু ফার্মেসি ও মাদার কেয়ার আউটলেটে ব্রেস্ট প্যাড পাওয়া যায়।

সাহায্য দরকার?  অস্থির হবেন না!

যদি শিশুটি যথেষ্ট খাবার পাচ্ছে কি না সে জন্য চিন্তিত তাহলে দয়া করে কোনও স্তন্যদান বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন, যাঁরা আপনার এবং আপনার বাচ্চার পরিস্থিতি অনুসারে আপনাকে আরও ব্যক্তিগত পরামর্শ দিতে পারেন।

দ্যএশিয়াপ্যারেন্ট এর সিঙ্গাপুরে একটি স্তন্যদায়ী মায়েদের সাহায্যকারী সংগঠন আছে, যাতে যোগ দিয়ে আপনি মা-থেকে-মা পরামর্শ পেতে পারেন।

Source: theindusparent

Any views or opinions expressed in this article are personal and belong solely to the author; and do not represent those of theAsianparent or its clients.

Written by

theIndusparent