ওও! ডিম্পি গাঙ্গুলীর মেয়ে এক বছরের হয়ে গেল আর তার উদযাপন ছিল দেখার মতো

নোতুন মা ডিম্পি গাঙ্গুলী এখন আকাশে ভাসছেন কারণ তাঁর মেয়ে এখন এক বছরের এবং ছোট্ট মেয়েটির জন্য দুবাইএ এক সুবিশাল পার্টির আয়োজন করলেন।

টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব এবং প্রাক্তন বিগ বস প্রতিযোগী  ডিম্পি গাঙ্গুলী একদা ছোট পর্দার মামুলি অভিনেত্রী ছিলেন। কিন্তু এখন, মনে হচ্ছে তিনি বেশ সুললিত হয়ে উঠেছেন। একজন সুখী ও পরিপূর্ণ সংসারী, তাঁর দুনিয়া এখন অনুগত স্বামী এবং শিশু কন্যার চারপাশে আবর্তিত হচ্ছে।

শ্রীমতী গাঙ্গুলী দুবাইএ বসবাসকারী ব্যবসায়ী রোহিত রয় কে নভেম্বর, ২০১৫ তে বিয়ে করেন এবং গত জুন মাসে একটি মেয়ের জন্ম দেন। তিনি ইনস্টাগ্রামে মা হবার আনন্দ সুন্দর সুন্দর ছবি সহ শেয়ারও করেছেন।

কিন্তু এখন এই দম্পতি তাঁদের মেয়ের এক বছর বয়স পূর্ণ হওয়া উপলক্ষে মা-বাবা রূপে আর একটি পদক্ষেপ করেছেন।

 

A photo posted by Dimpy (@dimpy_g) on

দুবাইয়ে স্থায়ীভাবে বসবাসকারী সুখী মা-বাবা এতে তাঁদের উত্তেজনা দমন করতে পারেনি এবং অকপট ভাবে রেয়ান্নার প্রথম জন্মদিনের পার্টির বহু ছবি শেয়ার করেছেন। বলা বাহুল্য, সে ছবি শুধু আনন্দিত নানা সুখী মুখ এবং উত্তেজিত বাচ্চাদের।

যদিও ছোট্ট মেয়েটির কোনও বন্ধু হয়তো এই পার্টিতে দেখা যায়নি, দম্পতির পুরো পরিবার ছোট্ট শিশুটিকে সঙ্গ দিতে উপস্থিত ছিলেন।

প্রকৃতপক্ষে, শুরুতে সে প্রথাগত টুপি পরে ছিল এবং ডিম্পি শেয়ার করার সময় ছবিটির শীর্ষক দিয়েছেন, "লাজে রাঙা হল কনে বৌ! হে হে"।

 

A photo posted by Dimpy (@dimpy_g) on

দারুণ প্রেমিক এই যুগল তাঁদের পরিবারের এই নোতুন সংযোজন নিয়ে ভীষণ উত্তেজিত। প্রকৃতপক্ষে, উভয়েই তাঁদের শিশু কন্যার পরিচয় জানিয়েছেন একেবারে নিজস্ব কায়দায়। যেখানে ডিম্পি ইনস্টাগ্রামে রেয়য়ান্নার ছবির সঙ্গে এক লম্বা বার্তা লিখেছেন সেখানে অনুগত বাবাও একটি হৃদয়গ্রাহী বার্তা লিখেছেন।

২০১৬ এমন একটা বছর যা 'ভালবাসা' শব্দটির এক বিমূর্ত ধারণা সৃষ্টি করেছে। তোমার প্রতিটি কণা ভালত্বের প্রতিকণার প্রতিচ্ছবি। আমি তা পৃথিবীতে আনতা সক্ষম! কাছে আসার জন্য আমাদের বেছে নেওয়ার জন্য তোমাকে ধন্যবাদ! তোমার ভারাভার আমাদের ওপর অর্পণ করার জন্য ঈশ্বরকে ধন্যবাদ। আমাদের সর্বশ্রেষ্ঠ গুণগুলি তার মাঝে অঙ্কিত করার জন্য তোমাকে ধন্যবাদ @ডিম্পি_গা! আমাদের জীবনে নিয়মিত প্রেরণার ভিত্তি স্থাপন করার জন্য রায় এবং গাঙ্গুলীদেরও ধন্যবাদ জানাই। তাঁদের সবাইকে ধন্যবাদ জানাই যাঁদের শুভকামনা আমাদের সবচেয়ে নিরাপদ বলয়ে ইতিবাচক এবং শুভ আবেগে ঢেকে রেখেছে! ২০১৬ সালকেও ধন্যবাদ জানাই আমাদের ওপর সবচেয়ে মহার্ঘ আশীর্বাদ বর্ষণ করার জন্য। বাবার ছোট্ট রাজকুমারী রেয়ান্না, সুস্বাগতম! তোমার বাবা তোমাকে অসংখ্যবার অফুরন্ত ভালবাসে!  #এনওয়াইই, #রেয়ান্না, #বাবারছোট্টরাজকুমারী, #সত্যভালবাসা, #আনন্দেরখনি, #আনন্দ, #আশীর্বাদ, #২০১৬, #২০১৭, #আমারভালবাসা, #আমারছোট্টমেয়ে, #আমার জীবনধারা, #আমারহৃস্পন্দন, আমারমূল্যধন, #আমারপুঁচকি, #আমারগেড়ি।

2016 has been a year that created a whole new surreal dimension for the word LOVE! Every bit of you is a reflection of every ounce of the goodness I am capable of bringing in this world! Thank you for choosing to come to us! Thank the Gods for placing Your trust in us! Thank you @dimpy_g for imprinting the best of US in her everyday! Thank The Roys and The Gangulys for being such constant pivotal cornerstones in our lives! Thank you all whose good wishes have wrapped all of us in the safest blanket of positivity and good vibes! Thank you 2016 for showering us with the most amazing blessing ever! Welcome REANNA, Daddy's Little Princess! Daddy loves you infinity times infinity! #nye #reanna #myreanna #daddyslittleprincess #truelove #bundleofjoy #happiness #blessing #2016 #2017 #myworld #myhappiness #mylove #mylittlegirl #mylifeline #myheartbeat #myprecious #mypuchki #mygeri

 

A photo posted by Dimpy (@dimpy_g) on

স্পষ্টতই দম্পতি তাঁদের নতুন ভূমিকা উপভোগ করছেন এবং ইতিমধ্যে তাদের জীবনে এই নতুন পর্যায়ে অভ্যস্ত হয়ে গেছেন। কিন্তু নতুন বাবা-মায়ের জন্য এটি সবসময়ই এই ছবিগুলির মতোই সহজ।

এই ধরনের পরিবর্তন নতুন বাবা-মায়ের জন্য বেশ কঠিন বলে মনে হতে পারে। তাই পরিবারের মধ্যে একটি নতুন সংযোজনের সাথে সামঞ্জস্য রক্ষা এবং কাজ করতে পারে?

এই তিন ভাবে আপনি সহজেই সন্তান প্রতিপালন করতে পারেন

  • আপনার অনুভূতি স্বীকার করুন : একটি নতুন শিশুকে আবাহন করা খুবই আনন্দদায়ক হতে পারে, কিন্তু প্রায়ই এর সঙ্গে ভয়, আতঙ্ক, এমনকি কখনও দুঃখদায়কও হতে পারে। অতএব, অগ্রসর হবার আগে, প্রথমেই এ ব্যাপারটা স্বীকার করে নিতে হবে। এভাবে, আপনি এইসব সমস্যা থেকে উত্তীর্ণ হবার সমাধান খুঁজে পাবেন।   
  • সাহায্য পাবার জন্য একটি শক্তপোক্ত ব্যাবস্থা তৈরি রাখুন : এখনকার নব্য মা-বাবারা নিজেরাই সবকিছু করে নিতে চান, কিন্তু ঠিক এজন্যই তাঁদের অজথা শক্তিক্ষয় হয়। তাই প্রয়োজন হলেই আপনার পরিবার ও বন্ধুবান্ধবদের সাহায্য নেওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ।
  • নিজের যত্ন নিন : আপনার শিশুর যত্ন নেওয়ার জন্য প্রথমে আপনাকে সুস্থ থাকতে হবে এবং নিজেকে প্রস্তুত করতে হবে। হ্যাঁ, এটা সত্যি যে আপনি শুধুমাত্র ঘুমাবার জন্য আপনার বাচ্চাকে কারও কাছে ছেড়ে দিতে পারেন না, আবার এটাও ঠিক যে শুধু এই কারণেই কারও সাহায্যের প্রয়োজন হয়। খানিক বিশ্রাম নিন আর তারপর নিজেকে তরতাজা করে ডায়াপারের কর্তব্যে আবার আত্মনিয়োগ করুন।
[All images courtesy: Instagram]